শুধুমাত্র রাজ কুন্দ্রা নন, এই মহিলাও পর্ন ছবির প্রযোজক বলে অভিযোগ! পরিচয় করুন ওনার সাথে


যদিও এর আগে বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী শিল্পা শেট্টির স্বামী রাজ কুন্দ্রা বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ ছিল কিন্তু বর্তমানে যে অভিযোগ উঠেছে তা গুরুতর আর ইতিমধ্যেই নীলছবির পরিচালনার জন্য তাকে গ্রেপ্তার করেছে মুম্বাই পুলিশ। রাজ্ কুন্দ্রার গ্রেফতারের পর একের পর এক নতুন নতুন তথ্য উঠে আসছে যা রীতিমতো সকলকে অবাক করে দেওয়ার মত। রাজ কুন্দ্রার বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে তিনি শার্লিন চোপড়া পুনাম পান্ডে প্রত্যেককেই নাকি নীল ছবির কাজ করতে বাধ্য করেছেন একইসঙ্গে তিনি বেশ কয়েকজন তারকা কেউ নগ্ন হতে বাধ্য করতেন।

রাজ এর এই কাজের জন্য প্রভাব পড়েছে তার স্ত্রী তথা অভিনেত্রী শিল্পার উপর, এমনকি তাকে জনপ্রিয় রিয়েলিটি শোয়ের বিচারকের পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে বলেও অভিযোগ তবে এবার প্রকাশ্যে এলো আরো এক চাঞ্চল্যকর তথ্য, জানা গিয়েছে শুধুমাত্র পরিচালনা বা প্রযোজনার কাজে পুরুষরা নন মহিলারাও জড়িত রয়েছে এই নীল ছবির প্রযোজনা এবং পরিচালনার কাজে আর এভাবেই নাম জড়িয়েছে এই জনপ্রিয় মহিলার।

আর সেই মহিলা হলেন ভারতের নীল ছবি ইন্ডাস্ট্রির জনপ্রিয় প্রযোজক গহনা বশিষ্ঠ।তিনি অনেকের কাছেই পরিচিত কারণ এক্তা কাপুর প্রযোজিত ওয়েব সিরিজ গন্দি বাত এই ধারাবাহিকে তাকে দেখা গিয়েছিল।

একইসঙ্গে বড় পর্দাতে সুযোগ না পেলেও ছোটখাটো ওয়েব সিরিজ পরিচালনা করতেন তার সঙ্গে তামিল-তেলেগু সিনেমাতেও অভিনয় করেছিলেন। আর সেই পরিচিতি কে কাজে লাগিয়ে তিনি ধীরে ধীরে ভারতের নীল ছবি ইন্ডাস্ট্রিতে পা রাখেন যদিও পিছন ফিরে দেখা যাবে বিনোদন জগতে এক সুপ্রতিষ্ঠিত নাম হয়ে উঠেছিলেন গহনা।শোনা যায় তামিলনাড়ুর ছত্রিশগড়ের মেয়ে এই গহনা। তার বাবা ছিলেন সেখানকার একজন সরকারি কর্মচারী এমনকি ঠাকুরমা ছিলেন প্রিন্সিপাল।

তার সঙ্গে ছাত্রী হিসেবে বেশ মেধাবী বলেই পরিচিত ছিলেন গহনা আর পরে পড়াশোনা শেষ করে মুম্বাইতে এসে বিনোদন দুনিয়াতে পা রেখেছিলেন।প্রথমেই নীলছবির দুনিয়াতে সহ-প্রযোজক হিসেবে কাজ করতেন।

তার পর নতুন নতুন ছেলেমেয়েদের এই কাজে উৎসাহিত করে তুলতেন এমনকি মোটা টাকার লোভ দেখিয়ে খোলামেলা শুটিং করছেন। পাশাপাশি একটি ছবিতে অভিনয়ের জন্য পনেরো থেকে কুড়ি হাজার টাকা করে পারিশ্রমিক দিতেন।

কিন্তু বিনিময়ে সেই ছবি বিক্রি করে লক্ষ লক্ষ টাকা রোজগার করতেন, এমনটাই অভিযোগ উঠেছে তার বিরুদ্ধে। যদিও তার এই কার্যকলাপ খুব বেশিদিন টিকে থাকেনি তাইতো চলতি বছরে ফেব্রুয়ারি মাসে পুলিশের হাতে তার বিরুদ্ধে বেশ কিছু তথ্য উঠে আসে এবং তার পরিপ্রেক্ষিতেই তাকে গ্রেফতার করা হয় একই সঙ্গে জানা যায় তিনি নাকি নতুন নতুন সিনেমায় পরিচয় করিয়ে দেওয়ার জন্য তাদের দিয়ে নানান রকমের খোলামেলা ছবি তুলতেন এমনকি সুযোগ দিতেন।তবে বর্তমানে তিনি জামিনে মুক্তি পেয়েছেন।





Source link

Leave a Comment